টাঙ্গাইলে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ!

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে সপ্তম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে অপহরণের পর ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ভূঞাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফাহিম ফয়সাল।

শনিবার (৭ মে) এ ঘটনায় ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ভূঞাপুর থানায় ধর্ষণ ও অপহরণ মামলা দায়ের করেন। পরে রবিবার সিরাজগঞ্জ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার দুই অভিযুক্ত হলেন- ভূঞাপুর উপজেলার গাবসারা ইউনিয়নের ফারুক শেখ (১৯) এবং সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বিশাল হোসেন (২০)।মামলা সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত ফারুক দীর্ঘদিন ধরেই ওই শিক্ষার্থীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল এবং রাস্তা-ঘাটে উত্ত্যক্ত করতো। প্রতিবাদ করায় ফারুক ওই শিক্ষার্থীকে তুলে নেওয়ার হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে গত ৫ মে সকালে ওই স্কুলছাত্রী যখন তার দাদার বাড়িতে যাচ্ছিল, সে সময় ফারুক তার দলবল নিয়ে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে। এরপর নৌকায় করে প্রথমে সিরাজগঞ্জে এক বন্ধুর বাসায় এবং পরে তার খালার বাসায় নিয়ে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করেন। বিষয়টি ওই ছাত্রীর বাবা জানতে পেরে ওইদিন রাতেই আত্মীয়-স্বজন ও স্থানীয় ব্যক্তিদের সঙ্গে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করেন। এ ব্যাপারে ভূঞাপুর থানার এসআই ফাহিম ফয়সাল আমার টাঙ্গাইলকে বলেন, “প্রধান আসামি ফারুক ও তার সহযোগীকে সিরাজগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারের পর তাদেরকে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে। মামলার বাকি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।”

মামলার পর ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

Share this post

PinIt
submit to reddit

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top