ঢাবির ‌‘নিখোঁজ’ ছাত্র হিমেল টাঙ্গাইল কারাগারে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘নিখোঁজ’ ছাত্র হামিদ সিকদার হিমেলের খোঁজ মিলেছে। টাঙ্গাইলে খাদ্য বিভাগের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে ধরা পড়েছেন তিনি। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। এখন হিমেল টাঙ্গাইল জেলা কারাগারে রয়েছেন।

হিমেলের পরিবার আমার টাঙ্গাইল কে জানান, ঢাবির শহীদুল্লাহ হল থেকে হিমেল গত শুক্রবার টাঙ্গাইলের সখীপুরে বাড়ি আসার উদ্দেশ্যে বের হয়। তারপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে তার পরিবারের পক্ষ থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করা হয়। পরে সোমবার তারা জানতে পারেন হিমেল কারাগারে রয়েছেন।টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আতাউর রাব্বি জানান, গত শুক্রবার টাঙ্গাইল টেক্সাইল ইন্সটিটিউট কেন্দ্রে খাদ্যবিভাগের সহকারী পরিদর্শক পদে রেজোয়ানুল হক নামক এক পরীক্ষার্থীর পরিবর্তে হিমেল পরীক্ষায় অংশ নেন। প্রবেশ পত্রের ছবির সঙ্গে হিমেলের মিল না থাকায় তাকে আটক করা হয়। তিনি রেজোয়ানুল হকের পরিবর্তে পরীক্ষা অংশ নেওয়ার কথা স্বীকার করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পরে তাকে টাঙ্গাইল কারাগারে পাঠানো হয়।

হিমেল ঢাকাস্থ সখীপুর স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক। সে সখীপুর উপজেলার জামালহাটকোরা গ্রামের বিল্লাল সিকদারের ছেলে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র।

Share this post

PinIt
submit to reddit

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top