বাধ্যতামূলক অবসরে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি!

বাধ্যতামূলক অবসরে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি ওমর ফারুক!পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডির) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত ডিআইজি) শেখ ওমর ফারুককে বাধ্যতামূলক অবসর দেয়া হয়েছে।

এক সঙ্গে খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ির ষষ্ঠ এপিবিএনের অধিনায়ক (পুলিশ সুপার) মোহাম্মদ আবদুর রহিমকেও অবসরে পাঠানো হয়েছে।বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের এই দু-কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসর দিয়ে বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

দুই কর্মকর্তার চাকরি ২৫ বছর পূর্ণ হওয়ায় ‘সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮’ এর ৫৪ ধারার বিধান অনুযায়ী জনস্বার্থে তাদের সরকারি চাকরি থেকে অবসর দেয়া হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে তাদের কী কারণে অবসর দেয়া হয়েছে তা প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়নি।পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে টিকার বৈশ্বিক কোভ্যাক্স কার্যক্রমে ইইউ’র সহায়তার নানা দিক তুলে ধরেন টিরিংক। তিনি বলেন, বৈশ্বিক করোনা মোকাবিলায় অন্যতম চালিকাশক্তি ইউরোপীয় ইউনিয়ন। চলতি বছর আমরা সারাবিশ্বে ২০ কোটি ডোজ টিকা সহায়তা দেব। ইইউ ও এর সদস্য দেশগুলো এরই মধ্যে মহামারি মোকাবিলায় ১৬ বিলিয়ন ইউরো সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। সুতরাং, উন্নয়নশীল দেশের সহযোগিতায় আমাদের পদক্ষেপের অবমূল্যায়ন করা ঠিক হবে না।

ইইউ রাষ্ট্রদূত বলেন, দুই দশমিক চার বিলিয়ন ইউরো দেওয়ার মাধ্যমে কোভ্যাক্স কার্যক্রমে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দাতা সংস্থা ইইউ। পাশাপাশি ১৬ বিলিয়ন ইউরোর প্রতিশ্রুতি তো রয়েছে। করোনার নমুনা পরীক্ষা, চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপনায় এই অর্থ খরচ হবে বলে জানান তিনি।

Share this post

PinIt
submit to reddit

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top