টাঙ্গাইলে আ’লীগ নেতা ফারুক হত্যার আসামির মৃত্যু কারা হেফাজতে!

টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার আসামি আনিসুল ইসলাম রাজা (৪২) কারা হেফাজতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মিট‌ফোর্ট হাসপাতা‌লে মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (০১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইলের জেল সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্যটি আমার টাঙ্গাইল কে নিশ্চিত করেছেন।আনিসুল ইসলাম রাজা টাঙ্গাইল শহরের কলেজপাড়া এলাকার আমিনুল ইসলাম মোতালেবের ছেলে।
জেল সুপার জানান, ‘মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর ২০১৪ সালের আগস্ট থেকে রাজা টাঙ্গাইল কারাগারে ছিলেন। গত আগস্টের মাঝামাঝি রাজার পেট ফুলে যায়। প্রথমে কারাগারের চিকিৎসক এবং পরে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে তার চিকিৎসা করানো হয়। জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেন।

পরে গত ১৮ আগস্ট তাকে ঢাকার কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। ওই কারাগারের হেফাজতে তাকে মিডফোর্ট হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। পরে ওই হাসপাতালেই মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) রাতে তার মৃত্যু হয়।’

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদের গুলিবিদ্ধ লাশ তার কলেজপাড়া এলাকার বাসার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার তিনদিন পর তার স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদি হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় রাজাকে ২০১৪ সালের ১৪ আগস্ট গোয়েন্দা পুলিশ গ্রেফতার করে। দুই দফা রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের পর তিনি এ হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।

Share this post

PinIt
submit to reddit

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top