কোপা আমেরিকার ফাইনালেই কি পেলের রেকর্ড ভাঙবেন মেসি!!

স্বপ্নের ফাইনালে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। কোপা আমেরিকার কাঙ্খিত ফাইনালে রোববার ভোরে (বাংলাদেশ সময়) শিরোপা মেসি এবং নেইমার অ্যান্ড কোং। শিরোপাটা উঠবে কার হাতে? মহারণ শেষ হওয়ার আগে বলার সাধ্য কার? তবে, তার আগে এ নিয়ে আলোচনার কমতি নেই। সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি আলোচনা অব্যাহত।

যদিও কোপা আমেরিকার ফাইনালের সামনে দারুণ একটি রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি লিওনেল মেসি। ফুটবল সম্রাট ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি এবং যাকে সর্বকালের সেরা ফুটবলার ভাবা হয়, সেই পেলের রেকর্ড ভাঙার সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন বর্তমান সময়ে গ্রহের সেরা ফুটবলারটি।সেমিফাইনালে সম্ভাবনা ছিল রেকর্ডটি ভাঙার। কিন্তু সেমিতে গোল করতে পারেননি মেসি। একটি গোল করিয়েছেন তিনি। তার একটি শট বারে লেগে ফিরে এসেছে। না হয়, হয়তো পেলেকে ছুঁয়ে ফেলতে পারতেন তিনি। ফাইনালে সৃষ্টি করতেন নতুন রেকর্ড।

তবে মেসি এমন এক ফুটবলার, যে কোনো সময় যে কোনো কিছু করে ফেলতে পারেন। পুরো টুর্নামেন্টের মতোই হয়তো ফাইনালটা হয়ে উঠতে পারে পুরো মেসিময়। হয়তো সেদিনই রেকর্ডের জন্য প্রয়োজনীয় গোল দুটি পেয়ে যেতে পারেন তিনি।ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকার ফাইনালটি অনুষ্ঠিত হবে রিও ডি জেনিরোর মারাকানা স্টেডিয়ামে। এ স্টেডিয়ামকেই কী তবে পেলের রেকর্ড ভাঙার মঞ্চ হিসেবে বেছে রেখেছেন মেসি? বলা যায় না। ফাইনালে জোড়া গোল করতে পারলে মারাকানাতেই ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলেকে পেছনে ফেলে দেবেন তিনি।

কী সেই রেকর্ড? লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে নিজ জাতীয় দলের হয়ে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলের মালিক হলেন পেলে। ৯২ ম্যাচ খেলে ৭৭টি গোল করেছেন পেলে। মেসি জাতীয় দলের হয়ে এখনও পর্যন্ত খেলেছেন ১৫০ ম্যাচ। গোল করেছেন ৭৬টি। আর একটি গোল করলে ছুঁবেন পেলেকে, দুটি করতে পারলে লাতিন আমেরিকার সবগুলো দেশের মধ্যেই সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডটা নিজের করে নেবেন মেসি।চলতি কোপা আমেরিকায় এখনও পর্যন্ত চারটি গোল এবং পাঁচটি অ্যাসিস্ট করেছেন মেসি। ৬ ম্যাচের মধ্যে ৫টিতে হয়েছেন ম্যাচ সেরা। গোল্ডেন বলের সঙ্গে গোল্ডেন বুট জয়ের দাবিদারদের ক্ষেত্রে এগিয়েই রয়েছেন মেসি।

দলকে ফাইনালে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করার পাশপাশি এই টুর্নামেন্টেই ব্যক্তিগত কিছু রেকর্ডও এরইমধ্যে করে ফেলেছেন তিনি।

∆ ইতিমধ্যেই মেসি যেই রেকর্ডগুলো গড়েছেন, সেগুলো হল

১) সতীর্থ হ্যাভিয়ের মাচেরানোকে (১৪৭) পিছনে ফেলে বলিভিয়ার বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে লা আলবিসেলেস্তেদের হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার নজির গড়েছেন মেসি। বর্তমানে তার খেলা আন্তর্জাতিক ম্যাচের সংখ্যা ১৫০।

২) মাচেরানোর পরিবর্তেই সবচেয়ে বেশিবার (৬) কোপা আমেরিকায় অংশগ্রহণকারী আর্জেন্টাইন হওয়ার কৃতিত্বও অর্জন করেন তিনি।

৩) সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে লাওতারো মার্টিনেজের গোলে এই টুর্নামেন্টে নিজের পঞ্চম অ্যাসিস্টটি দেন লিও মেসি। কোন ফুটবলারের পা থেকে কোপা আমেরিকার এক আসরে এর চেয়ে বেশি গোলের ঠিকানা লেখা পাস বেরোয়নি।

এতো গেল কী কী রেকর্ড গড়েছেন, তার তালিকা। কোপার ফাইনালেও একাধিক রেকর্ড গড়ার হাতছানি রয়েছে মেসির সামনে।

∆ কোপার ফাইনাল কী কী রেকর্ড গড়তে পারেন মেসি?

১) ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের বিরুদ্ধে মাঠে নামলেই যুগ্মভাবে চিলির সার্জিও লিভিংস্টোনের কোপা আমেরিকায় সর্বাধিক ম্যাচ খেলার রেকর্ড স্পর্শ করবেন মেসি। টুর্নামেন্টের শুরুতে মেসির কোপায় খেলায় ম্যাচের সংখ্যা ছিল ২৭, যা ফাইনালে মাঠে নামলে গিয়ে দাঁড়াবে ৩৪ ম্যাচে।

২) বর্তমানে কোপায় মেসির গোলসংখ্যা ১৩, যা জিজিনিও এবং নরবের্তো রদরিগেজের সর্বকালের সেরা রেকর্ড। মেসি এর চেয়ে চারটি কম গোল করেছেন। তবে, অসম্ভবকে সম্ভব করতে মেসির জুড়ি মেলা ভার।

৩) একাধিক গোল করতে পারলে তো বিরল রেকর্ডটিই গড়ে ফেলবেন তিনি। কিংবদন্তি পেলেকে পেছনে ফেলে লাতিন আমেরিকার সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে যাবেন তিনি। পেলের গোল ৭৭টি। মেসির গোল এখন ৭৬টি।

Share this post

PinIt
submit to reddit

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top